নিজস্ব সংবাদদাতা: টালিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিতে আরও দীর্ঘায়িত হল কোভিড আক্রান্তদের তালিকা। এবার করোনা সংক্রমণের শিকার হলেন টলিউড সুপারস্টার জিৎ। আজ সকালে নিজের টুইটারে হ্যান্ডেলে জিৎ লিখলেন, “সবাইকে জানাতে চাই যে আমি কোভিড-১৯ পজিটিভ। আমি বাড়িতে নিজেকে আইসোলেট করে রেখেছি এবং আমার স্বাস্থ্য পরামর্শদাতার পরামর্শ অনুসরণ করছি। বিগত গত কয়েক দিনে যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছেন তাঁদের কাছে আমার অনুরোধ, নিজেদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে নিন এবং নিজের খেয়াল রাখুন। শীঘ্রই আবার দেখা হচ্ছে।”

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার, পয়লা বৈশাখের দিনই প্রকাশ্যে এসেছিল জিৎ-মিমি অভিনীত আসন্ন ছবি ‘বাজি’র প্রথম গান ‘আয় না কাছে’। নাচে-গানে ভরপুর ভিডিওতে লাইক-শেয়ারের বন্যা হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। কথা ছিল গত বছর ইদে মুক্তি পাবে ‘বাজি’। তবে তা হয়নি। করোনার জেরেই ছবি মুক্তি পিছিয়ে যায়। অবশেষে গত বছর নভেম্বরে ছবির টিজার মুক্তি পেয়েছিল এবং তারপর গত সপ্তাহে অবশেষে প্রকাশ্যে আসে ছবির প্রথম গান। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এ বছর ঈদে মুক্তি পেতে পারে এই ছবি।

এদিকে, শুধু জিৎ নন। আজকেই করোনা আক্রান্ত হলেন টলিউড অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে নিজেই জানালেন সে কথা। এর আগে গত বছর শুভশ্রীর স্বামী পরিচালক রাজ চক্রবর্তী কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। উল্লেখ্য, রাজ আপাতত ব্যারাকপুরে রয়েছেন নির্বাচনের জন্য। তিনি সেই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী। আজ বেলায় শুভশ্রীর পোস্ট থেকেই জানা যায়, তাঁদের ৬ মাসের পুত্র-সন্তান ইউভান সুস্থ রয়েছে। শুভশ্রীর থেকে দূরে রাখা হয়েছে তাকে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাজ চক্রবর্তীর শরীরে করোনার হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত, তার দেড় সপ্তাহের মধ্যে করোনায় প্রাণ হারান তাঁর বাবা কৃষ্ণশঙ্কর চক্রবর্তী। সে সময়ে শুভশ্রী অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে বিশেষ ভাবে সকলের থেকে আলাদা রাখা হয়েছিল তাঁকে। করোনা পরীক্ষার ফলাফলও নেগেটিভ এসেছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। এবার করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে আক্রান্ত হলেন অভিনেত্রী।

আজ শুভশ্রীর পোস্ট থেকে জানা যায়, অভিনেত্রী আপাতত নিভৃতবাসে রয়েছেন। ছেলে ইউভানকে তাঁর কাছ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তার দেখাশোনা করছেন ইউভানের সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি। প্রসঙ্গত, নিজের অসুস্থতার খবর দেওয়ার পাশাপাশি শুভশ্রী তাঁর অনুরাগীদের সুস্থ থাকার উপদেশ দেন। কী কী স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত, তা উল্লেখ করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here