fbpx
Home অফবিট অপরাধ গণধর্ষণ করে সেই মেয়েকে নগ্ন অবস্থাতেই রাস্তায় দৌড় করায় দুষ্কৃতীরা! নৃশংসতা আজ...

গণধর্ষণ করে সেই মেয়েকে নগ্ন অবস্থাতেই রাস্তায় দৌড় করায় দুষ্কৃতীরা! নৃশংসতা আজ কোন পর্যায়ে!

মোরাদাবাদের ভোজপুর থানা এলাকায়, পাঁচ যুবক পথে মেলা দেখে ফেরার মেয়েটিকে গণধর্ষণ করে এবং পরে তাকে নগ্ন করে রাস্তায় ফেলে দেয়। লাজুক মেয়েটি চিৎকার চেঁচামেচি করতে করতে কোনোরকমে বাড়ি পৌঁছে গেল। ঘটনার পর, ভোজপুর থানা, যেটি পিছিয়ে ছিল, এসএসপির নির্দেশে সাত দিন পর একটি মামলা দায়ের করেছে। মঙ্গলবার এক মহিলা টুইটারে ঘটনার একটি ভিডিও পোস্ট করার পর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করছে।

সেখানে অভিযুক্তরা মেয়েটিকে গণধর্ষণ করে। সেখানে এক ব্যক্তি পাশের ক্ষেতে পানি ঢালছিলেন। চিৎকার শুনে তিনি পৌঁছলে অভিযুক্তরা সেখান থেকে ছুটতে থাকে। তারা একটি বাইকে যাচ্ছিল যখন তারা ভিকটিমকে নগ্ন হয়ে রাস্তায় দৌড়াতে বাধ্য করে। মঙ্গলবার টুইটের পর এই বিব্রতকর ভিডিওটি সামনে এসেছে। যদিও এর আগে পুলিশ বিষয়টিকে হালকাভাবে নিচ্ছিল।

গণধর্ষণ

ঘটনার দিন মেয়েটির বাড়িতে পৌঁছে তার বড় বোন তাৎক্ষণিকভাবে তার ঠাকুরদ্বারার বাসিন্দা ফুফাকে বিষয়টি জানায়, কারণ মেয়েটির বাবা-মা প্রতিবন্ধী। ফুফা ভোজপুর থানায় গিয়ে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করলেও পুলিশ তদন্ত করবে বলে বাধা দেয়। ছয় দিন অপেক্ষার পর গত ৬ সেপ্টেম্বর এসএসপি হেমন্ত কুটিয়ালের সঙ্গে দেখা করে বিক্ষুব্ধ দল।

তার নির্দেশে গত ৭ সেপ্টেম্বর ভোজপুর থানায় মামলা হয়। এ মামলায় এখন পর্যন্ত একজন আসামি নওশে আলীকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে। অপর চার নামধারী আসামি এখনও পুলিশের হাতে ধরা পড়েনি। অন্যদিকে, এসপি দেহাত সন্দীপ কুমার মীনাও একটি ভিডিও টুইট করে পুলিশকে সমর্থন করেছেন।

তারা জানায়, গত ৭ সেপ্টেম্বর মেয়েটির মামা ভোজপুর থানায় অভিযোগ দেন। মামলা দায়েরের পরপরই কিশোরী ও তার বাবা-মায়ের ১৬১ ও ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নেওয়া হয়। যেখানে উভয়েই এ ধরনের ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন। এরপরও তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে একজন আসামিকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্য আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here