অনেক সময় দম্পতি এবং সম্পর্কের এমন মজার ঘটনা ভাইরাল হয়, যা শুনে পুলিশ অফিসাররাও এই বিষয়ে কী করবেন তা নিয়ে বিভ্রান্ত হয়ে পড়েন। এমনই একটি ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যেখানে একজন পুরুষ একজন মহিলাকে একটি চিঠিতে লিখেছেন যে আমি তোমাকে পছন্দ করি। এরপর ওই নারীর স্বামী ওই ব্যক্তিকে বেধড়ক মারধর করেন।

আসলে এই ঘটনা সামনে এসেছে টুইটারের মাধ্যমে। সুশান্ত দত্ত নামে একজন টুইটার ব্যবহারকারী পাঞ্জাব পুলিশকে ট্যাগ করে একটি টুইট করেছেন এবং লিখেছেন যে আমি একজনকে ‘আই লাইক ইউ’ চিঠি পাঠিয়েছিলাম। গতকাল রাতে তার স্বামী আমাকে বাজেভাবে মারধর করে। আমি বারবার ক্ষমা চাইছি, কিন্তু এখন আমি আমার নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত। দয়া করে আমাকে সাহায্য করুন, আমার উপর আবারও হামলা হতে পারে।

ভাইরাল

শুধু তাই নয়, পাঞ্জাব পুলিশের অফিসিয়াল হ্যান্ডেল থেকেও এই টুইটের জবাব এসেছে। পাঞ্জাব পুলিশ, উত্তর দেওয়ার সময়, লিখেছিল যে, একজন মহিলাকে একটি অযাচিত বার্তা পাঠিয়ে বিনিময়ে আপনি কী আশা করছেন জানেন না, তবে তাদের আপনাকে মারধর করা উচিত হয়নি। আমাদের অভিযোগ করা উচিত ছিল। আমরা আইনি ধারায় শাস্তি দিতাম। যাই হোক, এখন উভয় অপরাধের বিষয়ে আইন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাঞ্জাব পুলিশ জবাব দিতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। মানুষ পাঞ্জাব পুলিশের উপস্থিতির প্রশংসা করছে, তো অন্যদিকে কিছু ব্যবহারকারী ব্যক্তিটিকে উপভোগ করছেন এবং চ্যাট টুইট পাঠাচ্ছেন যে ভাই, আপনি যদি পুরো বিষয়টি বলেন, তাহলে ব্যাপারটা আরেকটু উপভোগ্য হতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here