x

করোনা আবহে এখন প্রায় সবাই ঘরবন্দী। অফিসও হচ্ছে ‘ওয়ার্ক ফর্ম হোম’ মোডে। ফলে লাগছে ইন্টারনেট। তবে অফিসের কাজ হোক কিংবা অলস সময় কাটানো, মোবাইল পরিষেবায় জিও-এর প্ল্যান মানেই ‘কোনও কথা হবে না বস’।


মুকেশ আম্বানির টেলিকম সংস্থা গ্রাহকদের জন্য এনেছে বেশ কিছু সস্তার প্ল্যান। সেগুলোর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার আগে একটা দুঃসংবাদ। ৪৯ এবং ৬৯ টাকার প্ল্যান দুটি তুলে নিয়েছে জিও। এই দুই প্ল্যানে বিশেষত, ১৪ দিন ও ২৪ দিন ভ্যালিডিটি অফার করত। তবে হতাশ হবার কিছু নেই। এখনও জিও-র বেশ কিছু সস্তার প্ল্যান আছে যাতে কাজও মিটবে, পকেটের সাশ্রয়ও হবে। এখানে আমরা বেছে নিয়েছি জি-র সবথেকে সস্তা এবং জনপ্রিয় ৫ টি রিচার্জ প্ল্যান। দেখে নিন এক নজরে।

১। ৭৫ টাকার ২৮ দিন – এই মুহূর্তে গ্রাহকদের জন্য এটাই সবচেয়ে সস্তার প্ল্যান জিও-র। এতে ৩ জিবি ডেটা এবং ৫০ টি এসএমএস করা যাবে বিনামূল্যে। জিও টু জিও আন লিমিটেড কলের সুযোগ তো আছেই। সঙ্গে মিলছে অন্য নেটওয়ার্কে ৫০০ মিনিট পর্যন্ত বিনামূল্যে কথা বলার সুযোগ।

২। ১২৫ টাকায় ২৮ দিন – ভ্যালিডিটির সময়সীমা এক থাকলেও এতে মিলছে ১৪ জিবি-র ডেটা। বিনামূল্যে এসএমএস করা যাবে ৩০০ টি। এখানেও জিও টু জিও আনলিমিটেড কলের সুযোগ থাকছে। অন্য নেটওয়ার্কে ফোন করতে চাইলে মিলবে ৫০০ মিনিট ফ্রি।

৩। ১৫৫ টাকায় ২৮ দিন – এতে জিও টু জিও ছাড়াও জিও টু ল্যান্ডলাইনেও মিলছে আনলিমিটেড কলের সুযোগ। আর অন্য নেটওয়ার্কেও ৫০০ মিনিট ফ্রি কল করতে পারবেন গ্রাহকরা। সঙ্গে ২৮ জিবি ডেটা এবং ৫০০ টি ফ্রি এসএমএস করার সুযোগ থাকছে।

৪। ১৮৫ টাকায় ২৮ দিন – এই প্ল্যানেও জিও টু জিও ছাড়াও ল্যান্ডলাইনে আনলিমিটেড কলের সুযোগ পাচ্ছেন গ্রাহকরা। সঙ্গে প্রতিদিন ২ জিবি ডেটা এবং ১০০ এসএমএস করা যাবে। অন্য নেটওয়ার্কে থাকছে ৫০০ মিনিট পর্যন্ত কল করার সুবিধা।

৫। ১৯৯ টাকায় ২৮ দিন – এতে গ্রাহকরা প্রতিদিন ১.৫ ডিবি করে ডেটা পাবেন। এই প্ল্যানে জিও থেকে জিও আনলিমিটেড কলের পাশাপাশি নন জিও নম্বরে ১০০০ মিনিট পর্যন্ত কলিংয়ের সুবিধা রয়েছে৷ এছাড়াও প্রতিদিন ১০০টি করে এসএমএস এবং জিও অ্যাপের কমপ্লিমেন্টারি সাবস্ক্রিপশনও মিলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here