কোজাগরী লক্ষ্মীপুজো ভারতের একটি বিশেষ আনুষ্ঠানিক উৎসব। আশ্বিনের পূর্ণিমা তিথিতে বাংলার ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মী পূজিত হন। মা লক্ষ্মীর আরাধনায় ভুবন ভোরে উঠে। পুরাণ অনুযায়ী মা লক্ষী কোজাগরী পূর্ণিমা রাতে মর্তে আগমন করেন এবং তাঁর ভক্তদের আশীর্বাদ প্রদান করেন।

কোজাগরী লক্ষ্মীপুজো বিশেষভাবে অনুষ্ঠিত হয় পশ্চিমবঙ্গ, আসাম, উড়িষ্যা এবং বিহারে এবং এই পুজো দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে শারদ পূর্ণিমা নামে পরিচিত। যদিও ভারতের অধিকাংশ মানুষ দীপাবলীর অমাবস্যা তিথিতে মা লক্ষ্মীর আরাধনা করে থাকেন।

কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা দশমীর পাঁচ দিন পর হয়ে থাকে। কালীপুজোর আগে মাতা লক্ষী মর্তে আগমন করেন। আশ্বিনের পূর্ণিমা তিথিতে মাতা লক্ষী মধ্যরাত্রে তিনি তার ভক্তদের আশীর্বাদ প্রদান করেন। এটি মনে করা হয় যে কোজাগরী পূর্ণিমা রাত্রে চাঁদ তার ষোল কলা পূর্ণ করে সেই জন্য সেই দিনটি কে শারদ পূর্ণিমা বলা হয়। “কোজাগরীর” অর্থ হল “কে জাগো রে”। অর্থাৎ শারদ পূর্ণিমা রাত্রে যে রাত জেগে মায়ের আরাধনা করবে মা লক্ষ্মী তাকে সম্পদ সমৃদ্ধির অধিকারী করে তুলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here