fbpx
Home অফবিট প্রেম নাকি বন্ধুত্ব আপনার জীবনে কোনটির গুরুত্ব 100 শতাংশ অধিক...

প্রেম নাকি বন্ধুত্ব আপনার জীবনে কোনটির গুরুত্ব 100 শতাংশ অধিক হওয়া উচিত ?

প্রেম নাকি বন্ধুত্ব ! বুঝতেই পারছেন আলোচনার বিষয়টি এই দুই মোর।কেই বলে , প্রেম আগে! আবার কেউ কেউ বলে বসবে— না, বন্ধুই আগে। তবে প্রেমের বন্ধুত্ব অনেক বড়।বন্ধুত্বের হাত ধরেই আসে প্রেম। সে যদি আমার ভাল বন্ধু না হতে পারে তাহলে কখনোই সে আমার প্রেমিক হতে পারবে না। একটি প্রেমের সম্পর্কের ভিত্তি হচ্ছে বন্ধুত্ব। সম্পর্ক থেকে বন্ধুত্ব টাই যদি চলে যায় তাহলে সেই সম্পর্কটা শেষ হতে আর বেশি দিন থাকে না।

প্রেম নাকি বন্ধুত্ব
uppchaya

সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকতে কিছু মানুষের সার্বিক সহযোগীতার প্রয়োজন হয়। যারা মানুষের অনেক বড় বড় স্বার্থের উর্ধ্বে থাকে। একজন অন্যজনকে বেঁচে থাকতে সহায়তা করে। সমাজ বিজ্ঞানীরা বলেছেন, বন্ধু ছাড়া জীবন অসম্পূর্ণ। কোন মানুষ একাকী চলাফেরা করতে পারে না। যদিও বন্ধু নিয়ে অনেকের অভিজ্ঞতা সুখকর হয় না। যার কাছ থেকে প্রতারণা পাওয়া যায় সেতো বন্ধুই না।তবে, জীবনে প্রেম বা বিয়েটাই শেষ কথা নয়। ডিজিটাল মিডিয়ার যুগে একজন সত্যিকারের বন্ধু বা মন থেকে ভালো চায় এমন একজন বন্ধু পাওয়া খুবই কঠিন। একটি বিরল বই এর মতই একটি ভালো বন্ধু ও কিন্তু অমূল্য । প্রেমিকের মধ্যে ভালো বন্ধুর গুনটাও কিন্তু অত্যাবশ্যক । তবে, আজকালকার ছেলেমেয়েরা প্রেমের চেয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ককেই প্রাধান্য দেয় । কেননা, এ সম্পর্ক অনেকটা সচ্ছল। একটি প্রকৃত বন্ধু কখনোই বন্ধুকে বিপদের সময় ছেড়ে যাবে না। আবার অনেক ছেলেমেয়ে মনে করে প্রেমের চেয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্কের বাঁধনটাই বেশ জোরালো। যে কোনো ধরনের সমস্যা তার সঙ্গে শেয়ার করা যায় অনায়াসেই। এক কথায় জীবনের সব কিছু তাকে খোলাখুলি বলা যায়। তবে এটা কখনো কি মনে হয় যে কাছের বন্ধুটির সঙ্গে প্রেম করলে কেমন হতো! সেরা বন্ধুটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে না জড়ানো ভালো বলেও মনে করেন অনেকে। কারণ সম্পর্কের মধ্যে উত্থান-পতন থাকে। সম্পর্ক যদি ঠিকঠাক না চলে, তখন প্রেম থাকেই না , উপরন্তু বন্ধুত্বও ভেঙে যায়। তবে এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে, বন্ধুত্বের হাত ধরেই আসে প্রেম। সফল সম্পর্কের ভিত্তি হলো বন্ধুত্ব— এমনটি অনেকেই মনে করেন। তবে এমন কিছু মুহূর্ত জীবনে আসে যখন নিজের প্রেমিক অথবা প্রেমিকাকে বলতে না পারা কিছু কথা আমরা বন্ধুর কাছে শেয়ার করি। আমাদের জীবনে বন্ধু এমন একটি মানুষ যার কাছে নির্দ্বিধায় ও নির্ভয়ে অনেক কথা বলে দেওয়া যায়। সেই শৈশবকাল থেকে আমরা আমাদের সমস্ত গোপনীয় কথাগুলো তো বন্ধুদেরই বলেছি ! বন্ধুদের কাছে তাই আমাদের সরল হতে খুব সুবিধে হয়। বন্ধুরা আমাদের জীবনে আসে – কোনও সংযুক্তি এবং অনুভূতি ছাড়াই। তবুও আমরা তাদের সাথে বেড়ে ওঠেন , তাদের সাথে জীবন উপভোগ করি এবং সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ তাদের ভালবাসা এবং যত্ন করে থাকি ।

aid686537 v4 728px Turn Friendship Into Love Step 19
photo source : wikihow

তবে অবশ্যই প্রেমের অনুমতি টা সম্পূর্ণ আলাদা। আমাদের ভালোবাসার মানুষের কাছে নিজের সবকিছু বলতে ইচ্ছে তো আমাদের সবারই করে। তবে, গোটা জীবনটাতে একসাথে পথ চলতে গেলে ভালোবাসা বাদেও একটা জিনিস খুব দরকার পড়ে। সেটা হল বন্ধুত্ব। নচেৎ একটা সময়ের পর নিজেকে খুব একা মনে হতে পারে। তখন আবার নিজের সেই আগের বন্ধুদের প্রয়োজন বোধ হতে শুরু করে একটু নিজের মনের কথা বলার জন্য। ফলে, প্রেমের সম্পর্কে খানিকটা চির ধরার সম্ভাবনা থেকেই যায় ।তাই প্রেম এবং বন্ধুত্ব দুটিকে জীবনের সমান গুরুত্ব দেওয়াটা অত্যাবশ্যক। এই প্রসঙ্গেই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, “বন্ধুত্ব আটপৌরে, ভালবাসা পোষাকী। বন্ধুত্বের আটপৌরে কাপড়ের দুই-এক জায়গায় ছেঁড়া থাকিলেও চলে, ঈষৎ ময়লা হইলেও হানি নাই, হাঁটুর নীচে না পৌঁছিলেও পরিতে বারণ নাই। গায়ে দিয়া আরাম পাইলেই হইল। কিন্তু ভালবাসার পোষাক একটু ছেঁড়া থাকিবে না, ময়লা হইবে না, পরিপাটি হইবে। বন্ধুত্ব নাড়াচাড়া টানাছেঁড়া তোলাপাড়া সয়, কিন্তু ভালবাসা তাহা সয় না। “

আরও পড়ুন: https://www.banglakhabor.in/10-টি-নামী-ফোর-হুইলা্র/amp/

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here