অগ্নিবীরদের জন্য আরেকটি বিশেষ সুবিধা! বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদানের লক্ষ্য!

সরকার অগ্নিপথ প্রকল্পের অধীনে নিয়োগকৃত সৈন্যদের জন্য এক বিশেষ প্রকল্পের কথা বিবেচনা করছে। চাকরিসূত্রে কোনও অগ্নিবীর আহত হলে, তাঁর চিকিৎসা ব্যবস্থা বিনামূল্যে করার কথা বিবেচনা করছে, যাতে চার বছর পরেও সরকারের দায়িত্বে আহতরা সহায়তা পায় তা নিশ্চিত করতে, সরকার উদ্যত। বিদ্যমান নিয়মে সৈনিকদের জন্য ডিসচার্জ-পরবর্তী সুবিধার উল্লেখ নেই কিন্তু চাকরিতে আঘাতের কারণে চিকিৎসা সেবা প্রয়োজন এবং সেই আঘাত যদি দীর্ঘমেয়াদি হয়, তাহলে কোথা থেকে তাঁরা চিকিৎসা করাবেন? পুরানো স্কিমের অধীনে যেমন নিয়োগ করা সৈন্যদের প্রাক্তন সেনা স্বাস্থ্য প্রকল্পের পাশাপাশি আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক থেকে আজীবনের জন্য কভার করা হয়েছিল, সেরকমই কিছুর পুনরাবৃত্তি করার কথা ভাবছেন সরকার।

বিষয়টি নিয়ে বিশেষ আলোচনা চলছে বলে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। যে কোনও অগ্নিবীর দায়িত্ব পালনের সময় কোনও কারণে আহত হলে এবং তাঁর দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসার প্রয়োজন হলে তাঁর যত্ন নেওয়া হবে। কোনও সন্দেহ নেই যে আমরা তাদের দেখাশোনা করব এবং নিশ্চিত করব যে তাঁরা সর্বোত্তম সম্ভাব্য যত্ন পাবে।

অগ্নিবীর

পরিষেবা চলাকালীন কোনও আঘাতের ক্ষেত্রে, তীব্রতার উপর নির্ভর করে 15 লক্ষ থেকে 44 লক্ষ টাকা একক অর্থ প্রদানের বিধান রয়েছে। এখন পর্যন্ত, চার বছর চাকরি পূর্ণ হওয়ার পরে আহত সৈনিকদের ডিসচার্জ-পরবর্তী চিকিৎসা নিয়ে আলোচনা করা হয়নি। অনেক সৈন্যের দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা সেবা প্রয়োজন, যা বছরের পর বছর চলতে পারে। কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে, উদাহরণস্বরূপ, যুদ্ধে আহত সৈন্যদের আজীবন চিকিৎসা সহায়তা প্রয়োজন।

অগ্নিপথ প্রকল্পের অধীনে, দেশের তিনটি সেনাবাহিনীতে চার বছরের জন্য বিপুল সংখ্যক যুবককে নিয়োগ করা হবে। এই প্রকল্পের অধীনে, যাঁরা দেশের এই বিশেষ প্রতিরক্ষা পরিষেবাতে যোগ দিতে চান তাঁরা দেশের সম্পূর্ণ সুরক্ষা প্রদান করার সুযোগ পাবেন। চার বছর পূর্ণ হলে সেনাবাহিনীতে স্থায়ী চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবেন অগ্নিবীর। সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা তাদের যোগ্যতা ও কর্মক্ষমতার ভিত্তিতে অগ্নিবীরদের স্থায়ী করার জন্য বিবেচনা করবেন। স্থায়ী ক্যাডারে 25% অগ্নিবীর নিয়োগ করা হবে।

সেনাবাহিনীর সর্বত্র (ইউনিট, সদর দপ্তর ও প্রতিষ্ঠান) অগ্নিবীর মোতায়েন করা হবে। অপারেশনাল এবং নন-অপারেশনাল উভয় কাজই করতে হবে। সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেওয়া দমকলকর্মীদের 75 শতাংশকে 11.71 লক্ষ টাকার একটি পরিষেবা তহবিল প্যাকেজ দেওয়া হবে। এর ওপর কোনো কর আরোপ করা হবে না। এছাড়া স্কিল সার্টিফিকেট ও ব্যাংক লোনের মাধ্যমে তাদের আরেকটি চাকরি শুরু করতে সহায়তা করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here