পাঞ্জাবের বিখ্যাত সিধু মুসেওয়ালা হত্যাকাণ্ডের মাত্র দুই মাস পার হতে না হতেই পাঞ্জাব কেঁপে উঠেছে আরও একটি চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডে। এবার পাঞ্জাবের মালেরকোটলা জেলায় আম আদমি পার্টির কাউন্সিলর মহম্মদ আকবরের খুনের ঘটনা সামনে এসেছে। ঘটনাটি ঘটে যখন মোহাম্মদ আকবর জিমে ছিলেন এবং সোমবার ভোরে, দুই অজ্ঞাতপরিচয় হামলাকারী জিমে প্রবেশ করে এবং কাউন্সিলরকে গুলিবিদ্ধ করে। ঘটনার পর বাইক আরোহীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

আসলে এই ঘটনাটি প্রকাশ্যে এসেছে পাঞ্জাবের মালেরকোটলা জেলা থেকে। পিটিআই-এর মতে, আম আদমি পার্টির মিউনিসিপ্যাল ​​কাউন্সিলর মোহাম্মদ আকবর জিমে দুই অজ্ঞাতপরিচয় আততায়ীর হাতে খুন হন। মালেরকোটলার সিনিয়র পুলিশ সুপার অবনীত কৌর সিধু জানিয়েছেন, এক ব্যক্তি জিমে ঢুকে আকবরকে গুলি করে। তিনি জানান, মোহাম্মদ আকবরকে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়েছে।

পাঞ্জাব

ঘটনার পর পুলিশ আকবরকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুরো ঘটনাটি সেখানের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। সিসিটিভি ফুটেজের ভিত্তিতে হামলাকারীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ আরও জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত এটি ব্যক্তিগত শত্রুতার মামলা বলে মনে করা হচ্ছে এবং বর্তমানে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

এই ক্ষেত্রে মালেরকোটলার আম আদমি পার্টির বিধায়ক মোহাম্মদ জামিল উর রহমান বলেছেন যে আকবর তার দলের কাউন্সিলর ছিলেন। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজনৈতিক দলগুলোর গুন্ডারা আইনশৃঙ্খলার জন্য সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। রহমান বলেন, আসামিদের কারাগারে পাঠানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here