ইরানের কট্টরপন্থী ইসলামি ধর্মগুরুরা নারীদের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করেছে। ঘোষণাটি একটি বিজ্ঞাপন নিয়ে একটি উত্তপ্ত বিতর্কের মধ্যে এসেছে যেখানে একটি ঢিলেঢালা হিজাবে একজন মহিলাকে আইসক্রিম খেতে দেখানো হয়েছে।

আইসক্রিমের বিজ্ঞাপনে ক্ষুব্ধ ইরানি ধর্মগুরু। তিনি স্থানীয় আইসক্রিম প্রস্তুতকারক ডমিনো’সকে বিচারের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন। বিজ্ঞাপনটিকে ‘জনসাধারণের শালীনতার পরিপন্থী’ এবং ‘নারীর অপমানজনক মূল্যবোধ’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

ইরান ধর্মগুরু

এখন ইরানের সংস্কৃতি ও ইসলামিক নির্দেশনা মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে দেশটির শিল্প প্রতিষ্ঠান ও স্কুলে একটি চিঠি লিখে বলেছে যে ‘হিজাব এবং সতীত্বের নিয়ম’ অনুযায়ী নারীদের আর বিজ্ঞাপনে উপস্থিত হতে দেওয়া হয় না। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে যে এই নিষেধাজ্ঞা শুধুমাত্র সাংস্কৃতিক বিপ্লবের সুপ্রিম কাউন্সিলের সিদ্ধান্তের অধীনে।

বর্তমান সিদ্ধান্তটি বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন সংক্রান্ত ইরানের নিয়মের উপর ভিত্তি করে বলা হচ্ছে, যা দীর্ঘদিন ধরে দেশটিতে কার্যকর ছিল। এর আওতায় শুধু নারীই নয়, শিশু ও পুরুষদেরও ‘ইনস্ট্রুমেন্টাল ইউজ’ হিসেবে দেখানো নিষিদ্ধ। তবে তা নির্ভর করছে ক্ষমতাসীন প্রশাসনের অনমনীয়তার ওপর।

1979 সালের ইসলামী বিপ্লবের পর থেকে ইরানে নারীদের হিজাব পরতে বাধ্য করা হয়েছে। জানা যায়, এই বিপ্লবের পর দেশে ধর্মীয়ভাবে রক্ষণশীল আইন দ্রুত কার্যকর করা হয়। যখনই এখানকার মহিলারা এই নিয়মগুলির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার চেষ্টা করেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here