ভারতীয় দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা কিছুদিন আগে বলেছিলেন যে তিনি ভারতীয় মিডল অর্ডারকে এমন এক পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত করতে চান যখন টিম ইন্ডিয়া 10 রানে 3 উইকেট হারিয়ে ফেললেও, সেই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে এসে দল ম্যাচ জিততে পারে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি 2017 হোক বা 2019 বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল, প্রতিবারই আমরা দেখতে পেয়েছি যে ভারতীয় শীর্ষ 3 ব্যর্থ হলে টিম ইন্ডিয়ার পরাজয় নিশ্চিত। 2021 টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম দুটি ম্যাচেও আমাদের সাথে একইরকম ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু এখন রোহিত শর্মার এই কথাটাই যেন সত্যি বলে মনে হচ্ছে। ইংল্যান্ড সফরে টেস্ট, ওডিআই বা টি-টোয়েন্টি যাই হোক না কেন, প্রতিটি ফর্ম্যাটেই টিম ইন্ডিয়া তার শক্তিশালী মিডল অর্ডারের নিদর্শন দিয়েছে।

2019 বিশ্বকাপ পর্যন্ত, টিম ইন্ডিয়া তার টপ অর্ডার – এর উপর অনেক বেশি নির্ভর করে। টপ অর্ডারে অন্তর্ভুক্ত রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলির মতো অন্যতম ব্যাটসম্যান দীর্ঘ ইনিংস খেলে দলের জয়ে মুখ্য ভূমিকা রাখলেও গত দুই বছরে মিডল অর্ডারের সামনে তাঁদের ঔজ্জ্বল্য ম্লান হয়ে গেছে। আমরা যদি 1 জানুয়ারী, 2020 থেকে মিডল অর্ডারের পরিসংখ্যান দেখি, দেখতে পাবো 24টি ওয়ানডেতে 4 থেকে 7 নম্বর ব্যাটসম্যানদের মোট গড় 44.91 রয়েছে, যা বিশ্ব ক্রিকেটে অন্যতম একটি পরিসংখ্যান। এই সময়ের মধ্যে এই ব্যাটসম্যানরা মোট চারটি সেঞ্চুরিও করেছেন। 2020 সাল থেকে 4 নম্বর থেকে 7 নম্বরে সর্বাধিক সেঞ্চুরি করার তালিকায় শুধুমাত্র নিউজিল্যান্ড (5) ভারতের উপরে রয়েছে।

ভারত

টি-টোয়েন্টিতেও ভারতীয় মিডল অর্ডার শক্তিশালী দেখা গেছে। জানুয়ারী 1, 2020 থেকে, 4 নম্বর থেকে 7 নম্বর ব্যাটসম্যানদের সামগ্রিক গড় 31 হয়েছে এবং এই সময়ের মধ্যে মোট স্ট্রাইকরেট হয়েছে 140। এই পরিসংখ্যান টি-টোয়েন্টিতে ভারতের শক্তিশালী এক মিডল অর্ডার স্বচ্ছভাবে দেখায়।

শিখর ধাওয়ানের খারাপ ফর্ম টিম ইন্ডিয়াকে টপ 3-এ অনেক পরিবর্তন করতে বাধ্য করেছে। ভারতের শীর্ষ 3 আর আগের মতো স্থিতিশীল নেই, যা এখন খুব আশঙ্কাজনক এক চিত্র হিসেবে প্রমাণিত হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here