মাঙ্কি পক্স থেকে কিভাবে রক্ষা পাবেন?

মাঙ্কি পক্স রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে ক্রমাগত। বড় বড় ফোস্কার মতো বসন্ত ছড়িয়ে পড়ে সারা শরীরে। তাই এই ভয়ঙ্কর রোগের হাত থেকে রক্ষা পেতে কিছু জিনিস আপনাদের সকলের জেনে রাখা ভীষণ প্রয়োজন, যা আমি নিম্নে তালিকাভুক্ত করছি।

১. যে সমস্ত এলাকায় এই রোগ দেখা গেছে সেখানে কোনও অসুস্থ অথবা মৃত প্রাণীর দেহ থেকে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখুন।

২. যদি আপনার সংস্পর্শে কোনও সংক্রামক প্রাণী অথবা মানুষ আসে, ভালোভাবে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। প্রয়োজনে উপযুক্ত পরিমাণ অ্যালকোহল যুক্ত hand sanitizer ব্যবহার করুন।

৩. সংক্রামক কোনও ব্যক্তির তুলনায়, সংক্রামক কোনও প্রাণীর থেকে এই ভাইরাস বেশি পরিমাণে ছড়ায়। তাই তাদের থেকে যতটা সম্ভব দূরত্ব বজায় রাখুন।

৪. এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি বা প্রাণীদের যত্ন নেওয়ার সময় পিপিই কিটের ব্যবহার আবশ্যক।

৫. সংক্রমিত প্রাণী বা ব্যক্তিকে অন্তত ২১ দিন পর্যন্ত আইসোলেশনে রাখতে হবে।

মাঙ্কি পক্স

এখনও পর্যন্ত প্রায় ৩০ টি দেশে মাঙ্কি পক্স ছড়িয়ে পড়েছে। সারা পৃথিবীতে প্রায় ৭৮০ জন আক্রান্ত যার বেশিরভাগ ইউরোপের বাসিন্দা।

আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে সতর্কতা। সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। অতিমারি বিশারদ মারিয়া ভ্যান কারখোভ এবং WHO-এর স্বাস্থ্যকর্তারা সব দেশকেই কিছু ভবিষ্যত সতর্কতার পদক্ষেপ জারি করেছে।

” প্রথমত, সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে তৎক্ষণাৎ নিভৃতবাসে পাঠাতে হবে।

যদি একদল মানুষের মধ্যে ভাইরাস ছড়িয়ে গিয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়, তবে সকলকেই আলাদা রাখতে হবে। আর যাতে পরবর্তী কারোর ওপর তার প্রভাব না পড়ে।

করোনোর সময় অনেক স্বাস্থ্যকর্মী এবং চিকিৎসক সংক্রমিত হয়ে পড়েছিলেন শুধুমাত্র সতর্কতার অভাবে। সেই একই পরিবেশের যেন পুনরাবৃত্তি না হয় ” ।

ভারতে এখনও মাঙ্কি পক্সের কোনও ঘটনা ধরা পড়েনি। গুজরাটের এক শিশুকন্যা সংক্রমিত হয়েছে বলে সন্দেহ করা হয়েছে। আরও কয়েকটি শহরেও কয়েকজনকে নজরে রাখা হচ্ছে, তাই সবার সঙ্গে ভারতকেও সতর্ক করেছে WHO।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here