সত্যিই কি শোয়েব আখতারের বিশ্ব রেকর্ড ভাঙলেন ভুবনেশ্বর কুমার?

বিশ্ব ক্রিকেটে দ্রুততম বল করার রেকর্ড গড়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতার। 2003 বিশ্বকাপে, এই বোলার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘণ্টায় 161.3 কিলোমিটার বেগে একটি বল করেছিলেন। যা এক সাধারণ বোলারের পক্ষে এক অসাধারণ গতি। এর থেকে বেশি গতিতে বল করতে হলে, হয় বোলারকে তার পূর্ণ শক্তি লাগাতে হবে অথবা কোনও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এই রেকর্ড ভেঙ্গে যেতে পারে। ভারত ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সময় এমনই অভাবনীয় এক ঘটনা ঘটলো। রবিবার, ভুবনেশ্বর কুমার একটি নয়, দুটি বল 200 KMPH-এর বেশি গতিতে করেছিলেন। তবে প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে তা হওয়ায়, এই রেকর্ডটি বৈধ হবে না।

হ্যাঁ, ইনিংসের প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলটি 201 KMPH গতিতে রেকর্ড করা হয়েছিল এবং তৃতীয় বলটি ছিল 208 KMPH গতিতে। টিভিতে স্পিডগানে দেখানো এই দৃশ্য দেখে সবাই হতবাক। যান্ত্রিক ত্রুটির এই বিষয়টি নিয়ে ভক্তরা বেশ ঠাট্টা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এক ভক্ত এমনও বলেছেন যে, পাকিস্তানের হাসান আলি যদি 219 কিমি প্রতি ঘন্টা বেগে বল করতে পারেন তবে ভুবনেশ্বর কুমার কেন 201 কিমি প্রতি ঘন্টা বেগে বল করতে পারবেন না?

ভুবনেশ্বর কুমার - শোয়েব আখতার

ম্যাচের কথা বলতে গেলে, বৃষ্টির বিঘ্নে ম্যাচ শুরু হয় বেশ দেরিতে। শেষমেশ 12 ওভারের খেলা হবে বলে নির্ধারিত হয়। এই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া টস জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয়। নেদারল্যান্ডের হয়ে টেকটর 33 বলে 64 রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। তাঁর ইনিংসের উপর নির্ভর করেই আয়ারল্যান্ড ভারতের সামনে 109 রানের লক্ষ্য নির্ধারণ করতে সক্ষম হয়।

এই স্কোর চেস করতে নেমে 11 বলে 26 রান করে টিম ইন্ডিয়াকে শক্তিশালী সূচনা দেন ইশান কিষান। তাকে বোল্ড করে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান ক্রেইগ ইয়ং। এর পর ব্যাট করতে আসা সূর্যকুমার যাদব পরের বলেই এলবিডব্লিউ আউট হয়ে যাওয়ায় বিপদ সংকেত পান দলের অধিনায়ক। তাই নিজেই নেমে পড়েন যুদ্ধজয়ের উদ্দেশ্যে। দীপক হুডার দুর্দান্ত 29 বলে 47 রানের সঙ্গে হার্দিক পান্ডিয়া 12 বলে 24 রান করে দলকে জয়ের একদম কাছাকাছি পৌঁছে দেন।

যখন আর মাত্র 15 রান বাকি, জোশুয়া লিটলের বলে এলবিডব্লিউ হন হার্দিক পান্ডিয়া। শেষে অপরাজিত 4 রান করে দীপক হুডার সঙ্গে ভারতের বিজয়রথ নিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন দীনেশ কার্তিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here