পশ্চিমবঙ্গে ভারতীয় জনতা পার্টির জন্য এক বড়সড় ধাক্কা। রবিবার দেশে ফিরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ফের তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে কলকাতায় দলে যোগদানের অনুমতি দেন। ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-এর সাম্প্রতিক টুইটগুলি সাধারণ মানুষের মনে জল্পনার জন্ম দিয়েছিল।

তিনি লিখেছেন যে, তিনি দলের প্রতি অসন্তুষ্ট ছিলেন। অর্জুন সিং সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতৃত্বের সমালোচনাও শুরু করেছিলেন। লিখেছিলেন যে তিনি দলের সিনিয়র পদে থাকার পরেও সেই দল সঠিকভাবে তাকে কাজ করতে দেয়নি। অর্জুন সিংয়ের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয়েছিল কংগ্রেসের হাত ধরেই। তিনি 2001 সালে তৃণমূলের বিধায়ক হয়ে বিধানসভায় পৌঁছেছিলেন।

এর পরে, তিনি 2019 লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিতে যোগ দেন এবং সেইসময় পার্টি তাকে ব্যারাকপুর থেকে সাংসদ নির্বাচনের টিকিট দেয় এবং তিনি MP হন। প্রায় তিন বছর পর আবারও পুরনো দলে ফিরেছেন তিনি।

এবিষয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করেছেন, “অর্জুন সিংকে স্বাগত জানাই, যিনি বিজেপির এই বিভাজনকারী শক্তি প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং আজ টিএমসি পরিবারে যোগ দিয়েছেন।

অর্জুন সিং

দেশের কত জায়গায় কত মানুষ এখনও কত কষ্টে রয়েছেন! তাদের এখন আগের চেয়ে আমাদের মতো যোদ্ধাদের আরও বেশি প্রয়োজন। আসুন লড়াই চালিয়ে যাই।পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করতে সোমবার তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা অর্জুন সিং-এর৷ এদিকে শক্তি খুইয়ে বিজেপির দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, দলে পুরোনোদের পিছু হটতে বাধ্য করা হচ্ছে৷ আজ থেকে বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক শুরু হচ্ছে। ফলে অর্জুন সিং প্রসঙ্গ নিয়ে যে বৈঠকে আলোচনা হবে সে কথা বলাই বাহুল্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here