পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে বিজেপি 2024 সালের লোকসভা নির্বাচনে এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না এবং অন্যান্য দলগুলি ঐক্যবদ্ধভাবে সরকার গঠন করবে। কলকাতায় শহীদ দিবসের সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে, 2024 সালের লোকসভা নির্বাচনে জনগণ বিজেপিকে কেন্দ্রের ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেবে। মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির বিরুদ্ধে দেশের প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করার অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে যাদের কোনও ভূমিকা ছিল না তারাই দেশের ইতিহাস নতুন করে লেখার চেষ্টা করছে। তাঁর স্পষ্ট বাগমিতায় ধরা পড়ে এমন কিছু লাইন – “2024 সালে বিজেপি ক্ষমতা থেকে উৎখাত হবে। তারা পরাজিত হবে। আমি দৃঢ়ভাবে বলছি, বিজেপি একা একা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না”।

তিনি বলেন যে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলে, অন্যান্য দলগুলি একত্রিত হয়ে পরবর্তী সরকার গঠন করবে। বজ্র করতালির মধ্যে টিএমসি সুপ্রিমো জনগণের কাছে আবেদন করেছিলেন, ‘বিজেপির বন্দিদশা থেকে মুক্তি পান, 2024 সালে জনতা নতুন সরকার আনুন’। মুখ্যমন্ত্রী 25 কেজির কম ওজনের শস্য, ডাল এবং আটার মতো সমস্ত ধরণের খাবারের প্যাকেটের উপর GST আরোপকে জনবিরোধী পদক্ষেপ হিসাবে অভিহিত করেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “বিজেপি যখন সবকিছুর ওপর GST ধার্য করছে তখন লোকেরা কী খাবে? এদেশে গরিবরা বাঁচবে কী করে?’

Mamata Banerjee নির্বাচন

বিজেপিকে সতর্ক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন যে, তারা যদি মহারাষ্ট্রের মতো বাংলার সরকারকে দমানোর চেষ্টা করে তবে তারা উপযুক্ত জবাব পাবে। সমাবেশে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কিছু পংক্তি মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘ চিত্ত যেথা ভয়শূন্য, উচ্চ যেথা শির’। তিনি বলেন, কিছু লোক আমাদের (বাংলার) নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ত্রুটি দেখেন, কিন্তু কেনও রেল, কেন্দ্রীয় সরকারি দপ্তরে নিয়োগের বিষয়ে কিছু বলা হয় না। এদিকে, সিনিয়র টিএমসি নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে তৃণমূল পশ্চিমবঙ্গের বাইরে প্রসারিত হওয়ার এবং 2024 সালের লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের বাইরে আসন জেতার পরিকল্পনা চালিয়ে যাবে।

টিএমসির এই সমাবেশটি বিশেষ ছিল কারণ এটি 2021 সালের বিধানসভা নির্বাচনের বিজয়রথের পর এবং তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় ফিরে আসার পরে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী বুধবার বলেন যে, শহীদ দিবসের সমাবেশ হবে কেন্দ্রের “স্বৈরাচারী শাসনের” বিরুদ্ধে। 1993 সালে তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে যুব কংগ্রেসের সমাবেশে পুলিশের গুলিতে নিহত 13 জনের স্মরণে TMC প্রতি বছর 21শে জুলাই শহীদ দিবস পালন করে। এই ঘটনার সময় মুখ্যমন্ত্রী যুব কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি ছিলেন। তিনি প্রতিবছর অনুভব করেন এই দিনের মাহাত্ম্য এবং অনুষ্ঠিত করেন সম্মেলন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here