সাইবার ক্রাইমের হার দিন দিন দেশব্যাপী বেড়েই যাচ্ছে লাগামছাড়াভাবে। কোন কুরুচিকর  ভিডিও বা  অশ্লীন ছবিতে কোন মহিলা বা পুরুষের মুখাংশ বসিয়ে  তাকে হেনস্থা করা একপ্রকার বা-হাতের খেল অপরাধীদের কাছে।এবার সেই অপরাধীদের নিশানা  টলিউড অভিনেত্রীর দিকে। একটি ভিডিও চ্যাটে  অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের  ফটো ব্যবহার করে অনলাইন প্রচার করা  হল তাও তার বিনা অনুমতিতে।  

ইন্টারনেট কে মানুষ একপ্রকার তার নিত্য জীবনের সঙ্গী করে নিয়েছেন।ইন্টারনেটে ভালো দিকের সাথে সাথে একে ব্যবহার করে কিভাবে অপরাধের পাথেও হওয়া যায় তা এখন মানুষের হস্তসিদ্ধ। সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেসের লোকসভার সাংসদ তথা টলিউড খ্যাত অভিনেত্রী নুসরাত জাহান তার ট্যুইটার হ্যান্ডেলে একটি পোষ্ট শেয়ার করেন, যেখানে তিনি অভিযোগ করেন  ‘ফ্যানসিইড’ নামক একটি ভিডিও চ্যাট অ্যাপ্লিকেশন  তাঁদের অনলাইন প্রচারের জন্য তার বিনা সম্মতিতে তার ছবি ব্যবহার করেছে। যা একটি ঘৃণ্যতম অপরাধ বলে ধার্য করা যায়। কলকাতা পুলিশের সাইবার সেলকে অনুরোধ করব বিষয়টি দেখার জন্য। আমি এই বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নিতে প্রস্তূত।”

প্রসঙ্গত, নুসরত এই অগ্রহণযোগ্য বিষয়টি কলকাতা পুলিশকে খতিয়ে দেখার জন্যও আবেদন করেছেন এবং তদন্তের সুবিদার্থে বিজ্ঞাপনটির স্ক্রিনশট শেয়ার করে সেটি পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাকেও ট্যাগ করেন।

IMG 20200930 015938

সম্প্রতি মহালয়ার দিন অভিনেত্রী দুর্গাবেশে একটি ভিডিও পোস্ট করেন যেখানে তার শারীরিক ভঙ্গী নিয়ে অনেকেই কটূক্তি করে, ও অশ্লীন মন্তব্য করে, এবং তিনি কেন শুভ মহালয়া ইংরাজীতে লিখেছেন তা নিয়েও ক্ষোভ উগড়ে দেয় নেটাগরিক।

বর্তমান সভ‍্য সমাজ এই সোশ্যাল মিডিয়া সঠিক ব্যবহারের সীমা ভুলে গিয়ে লিপ্ত হচ্ছেন বহু অপরাধমূলক কর্মকান্ডে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here